fbpx

জামিন পেলেন সালমান খান

দুই রাত জেলে কাটানোর পর অবশেষে মুক্তি পেলেন সালমন খান। আজ শনিবার ৫০ হাজার টাকার ব্যক্তিগত মুচলেকায় সালমানের জামিন মঞ্জুর করে আদালত। সন্ধ্যা সাতটার পর জেল থেকে ছাড়া পাবেন তিনি। তবে বিদেশে যাওয়ার ক্ষেত্রে আগে আদালতের অনুমতি নিতে হবে এই অভিনেতাকে।

কৃষ্ণসার হরিণ হত্যার ২০ বছরের পুরনো এই মামলায় তাকে গত ৫ এপ্রিল কারাদণ্ড দেওয়া হয়। গতকাল শুক্রবার তিনি জামিন চেয়েছিলেন। কিন্তু পাননি। অবশেষে আজ শনিবার জামিনে ছাড়া পাচ্ছেন ‘বজরঙ্গি ভাইজান’।

জামিনের খবর ছড়িয়ে পড়লে উৎসবে মেতে ওঠেন সালমান ভক্তরা। পোড়ানো হয় বাজি। মিষ্টিও বিলি করেন অনুগামীরা। গত কয়েকদিন ধরে যোধপুরেই ছিলেন সালমনের বোন অর্পিতা ও আলভিরা। এই খবর শোনার পর স্বস্তি পান সালমনের পরিবারের লোকজন।

ভারতীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় যোধপুর আদালতে সালমানের জামিন আবেদনের শুনানি শুরু হয়। তখন আদালত প্রথমে জামিনের রায় দুপুর আড়াইটায় দেওয়ার কথা বলেন। পরে তা আরও এক ঘণ্টা বাড়িয়ে দুপুর সাড়ে ৩টা করা হয়।

রায়ের সময় আদালতে সালমানের আইনজীবীসহ উপস্থিত ছিলেন তার দুই বোন আলভিরা ও অর্পিতা খান শর্মা। তাদের আদালতে নিয়ে আসেন সালমানের দেহরক্ষী শেরা।

প্রসঙ্গত, ১৯৯৮ সালে যোধপুরে কৃষ্ণ হরিণ হত্যার দায়ে সালমান খানের নামের মামলা হয়। দীর্ঘ ১৯ বছর পর সেই মামলায় পাঁচ বছরের জেল হয় সালমানের। তাকে রাখা হয়েছিলো যোধপুর সেন্ট্রাল জেলের ২ নম্বর ব্যারাকে। জেলে সালমান খানের সঙ্গী ছিলেন ধর্ষণে অভিযুক্ত স্বঘোষিত ধর্মগুরু আসারাম বাপু।

 

জামিন পেলেন সালমান খান

Buy Your Own Hosting

Leave a Reply